আমেরিকা ভিসা প্রসেস করার সম্পূর্ণ গাইড লাইন। ভিসার ধরন, ডকুমেন্টস, আবেদন প্রক্রিয়া, ভিসা ফি এবং আরও প্রাসঙ্গিক তথ্য।

প্রতি বছর লাখ লাখ মানুষ আমেরিকা বা যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করে। সবার জন্য এটি একটি জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র এবং অভিবাসন গন্তব্য। আপনি যদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা না হন, তবে আমেরিকা প্রবেশের জন্য ভিসার প্রয়োজন হবে। আমেরিকা ভিসা প্রসেস করার পর আপনার পাসপোর্টে ভিসা স্টিকার করে দেয়া হবে। মার্কিন ভিসা থাকার অর্থ এই নয় যে আপনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতেই পারবেন। এটি ডিপার্টমেন্ট অফ হোমল্যান্ড সিকিউরিটি (ডিএইচএস) এবং কাস্টমস অ্যান্ড বর্ডারস প্রোটেকশন (সিপিবি) পরিদর্শকদের বিবেচনার ভিত্তিতে আপনি আমেরিকা ইমিগ্রেশন ক্রস করতে পারবেন।

আমেরিকা ভিসার প্রকারভেদ।

প্রায় ১৮৫ ধরনের মার্কিন ভিসা রয়েছে, যা দুটি প্রধান বিভাগে বিভক্তঃ

  • নন ইমিগ্রেন্ট  ভিসা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অস্থায়ীভাবে ভ্রমনের জন্য এই ক্যাটাগরির ভিসা দেয়া হয় যেমন- পর্যটন, ব্যবসা, চাকরি, পারিবারিক সফর অথবা অধ্যয়নের জন্য।
  • ইমিগ্রেন্ট ভিসা। যার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী ভাবে বসবাসের জন্য আসতে চায় তাদের জন্য এই ক্যটাগরির ভিসা। যেমন- ইনভেস্টর স্কিম

আমেরিকা ভিসার প্রধান ধরনগুলো নীচে দেয়া হলঃ

  • ভিজিটর ভিসা। যারা সর্বোচ্চ ছয় মাসের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যেতে চান তাদের জন্য মার্কিন ভিজিটর ভিসা দেয়া হয়। এই ভিসার মেয়াদ সাধারণত ৫ বছর হয়ে থাকে। ভিজিটর ভিসা আবার ২ ভাগে বিভক্ত যেমনঃ
    • ব্যবসায়িক পরিদর্শনের জন্য B1 ভিসা।
    • পর্যটন দর্শনার্থীদের জন্য B2 ভিসা।
  • স্টুডেন্ট ভিসা। একাডেমিক এবং ভোকেশনালের উদ্দেশ্যে F এবং M টাইপ ভিসা প্রসেস করা হয়। আপনার স্কুল এবং আপনার পড়াশোনার ক্ষেত্রের উপর নির্ভর করে, আপনাকে F1 বা M1 ভিসা পেতে হবে। এইগুলি হল মার্কিন ছাত্র ভিসার বিভাগ:
    • শিক্ষার্থীদের জন্য F1 এবং F2 ভিসা।
    • ভোকেশনালের জন্য M1 ভিসা।
  • এক্সচেঞ্জ ভিজিটর ভিসা। আপনি যদি আপনার ভিসার টাইপ চেঞ্জ করে কোন প্রশিক্ষণ বা কর্মসংস্থানে যুক্ত হতে চান তবে আপনার ভিসাকে বলা হবে এক্সচেঞ্জ ভিজিটর ভিসা। এটা J1 এবং Q টাইপ ভিসা নামে পরিচিত। 
  • অস্থায়ী কাজের ভিসা। এই ভিসাগুলি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অস্থায়ীভাবে কাজের জন্য দেয়া হয়। নীচে অস্থায়ী কাজের ভিসার টাইপগুলো দেয়া হলঃ
    • H1B ভিসা। হাই স্কিল্ড ব্যক্তিদের জন্য।
    • H1B1 ভিসা। চিলি এবং সিঙ্গাপুরের নাগরিকদের জন্য।
    • H-2A ভিসা। নির্বাচিত দেশ থেকে অস্থায়ী কৃষি কর্মীদের জন্য।
    • H-2B ভিসা। অস্থায়ী মৌসুমী শ্রমিকদের জন্য, যারা কৃষি কাজ করে না।
    • H-3 ভিসা। যারা প্রশিক্ষণ এবং শিক্ষার সুযোগের সুবিধা নিতে চান তাদের জন্য।
    • L1 ভিসা। ইন্ট্রাকোম্পানি ম্যানেজার বা এক্সিকিউটিভদের জন্য।
    • আর্টস, বিজ্ঞান, ব্যবসা, শিক্ষা, বা অ্যাথলেটিক্সে যাদের অসাধারণ দক্ষতা রয়েছে এবং ইউ এস এ তে সাময়িকভাবে কাজ করতে চান তাদের জন্য এই ভিসা দেয়া হয়। এই ভিসা তিন ধরনের হয়ে থাকেঃ
    • O1 ভিসা – অসাধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যক্তিদের জন্য।
    • O2 ভিসা – O1 ভিসাধারীদের সহকারীর জন্য।
    • O3 ভিসা – O1 ভিসাধারীদের ডিপেন্ডেন্টদের জন্য।
  • P টাইপ ভিসা। ক্রীড়াবিদ এবং তাদের কোচিং দলের জন্য।
  • R1 টাইপ ভিসা। অস্থায়ী ধর্মীয় কর্মী যারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ধর্মীয় কাজে আসতে চান।
  • TN/TD টাইপ ভিসা। কানাডা বা মেক্সিকো নাগরিকদের জন্য যারা NAFTA সংস্থায় কাজ করবে তাদের জন্য।
  • E3 টাইপ ভিসা। অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকদের জন্য। যারা বিশেষ পেশায় কাজ করতে চায়। 
  • I টাইপ ভিসা। বিদেশী মিডিয়ার প্রতিনিধি যেমনঃ প্রেস, ফিল্ম, রেডিও বা সাংবাদিক যারা কাজ করতে বা শিক্ষামূলক মিডিয়া কার্যক্রমে অংশ নিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যেতে চায়।
  • ট্রিটি ট্রেডার এবং ইনভেস্টর ভিসা।  ই ভিসাগুলিকে যথাক্রমে ট্রিটি ট্রেডার এবং ট্রিটি ইনভেস্টর ভিসা বলা হয়, যাদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসা-বাণিজ্য এবং নেভিগেশন চুক্তি আছে তাদের জন্য। এই ভিসা দুই প্রকার জথাঃ 
    • E1 ভিসা – ট্রিটি ট্রেডার ভিসা।
    • E2 ভিসা – ট্রিটি ইনভেস্টর ভিসা
  • ডিপ্লমেটিক এবং অফিসিয়াল ভিসা। এই ভিসার বিভাগগুলি নিম্নরূপঃ
    • A1 ভিসা কূটনীতিক বা বিদেশী সরকারী কর্মকর্তাদের জন্য যারা সরকারী দায়িত্বে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ করতে চায়।
    • A2 NATO1-6 ভিসা শুধুমাত্র বিদেশী সামরিক কর্মীদের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সেবা দিতে চলেছেন
    • G-1 থেকে G-5 ভিসা পাবেন যারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আন্তর্জাতিক সংস্থায় নিযুক্ত হয়ে থাকতে চান। আর যারা ন্যাটোর হয়ে কাজ করবেন, তারা ন্যাটোর ভিসা পাবেন।
  • অপরাধ এবং মানব পাচারের শিকারদের জন্য ভিসা। নিম্নলিখিত ভিসাগুলি এই ধরণের ভিসার অংশঃ
    • T টাইপ ভিসা হচ্ছে যারা মানব পাচার সংক্রান্ত অপরাধ তদন্তে সহায়তা করতে পারে তাদের জন্যে।
    • U টাইপ ভিসা তাদের জন্য যারা নির্দিষ্ট অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের শিকার হয়েছেন এবং এই অপরাধীদের তদন্ত বা বিচারে সহায়তা করতে যদি ইউ এস এ যেতে হয় সে জন্যে।
  • ট্রানজিট এবং ক্রু মেম্বার ভিসা। এখানে এই ধরনের ভিসার ক্যাটাগরি নীচে দেওয়া হল
    • C ভিসা টাইপ হল ট্রানজিট ভিসা।
    • D টাইপ ভিসাটি ক্রু সদস্যদের জন্য যারা সমুদ্রের জাহাজ বা আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থায় কাজ করবেন।
  • ইমিডিয়েট আত্মীয় এবং পরিবার স্পন্সর ভিসা।  নীচে ভিসার বিভাগগুলি দেয়া হয়েছেঃ
    • F2A এবং F2B ভিসা হল বৈধ স্থায়ী বাসিন্দাদের পরিবারের জন্য যেমনঃ স্বামী/স্ত্রী, সন্তান, অথবা ২১ বছর বা তার বেশি বয়সী অবিবাহিত ছেলে-মেয়েদের জন্য।
    • IR-2 ভিসা – ২১ বছরের কম বয়সী অবিবাহিত শিশুদের জন্য।
    • IR5 ভিসা – মার্কিন নাগরিকদের পিতামাতার জন্য যাদের বয়স কমপক্ষে 21 বছর
    • F1 – অবিবাহিত ছেলে-মেয়ে এবং তাদের নাবালক সন্তানদের জন্য।
    • F3 ভিসা – বিবাহিত পুত্র ও কন্যা এবং তাদের নাবালক সন্তানদের জন্য।
    • F4 ভিসা – মার্কিন নাগরিকদের ভাই ও বোন, এবং তাদের স্ত্রী এবং নাবালক সন্তানদের জন্য। 
    • IR3, IH3, IR4, IH4 ভিসা অন্যান্য দেশের শিশুদের জন্য যারা মার্কিন নাগরিক পিতামাতাদের দ্বারা দত্তক নেওয়া হয়েছে।
    • SQ ভিসাটি ইরাকি বা আফগান নাগরিকদের জন্য যারা মার্কিন সরকারের পক্ষে কাজ করবে। 
  • ফিওন্স এবং স্পাউস ভিসা বিভাগগুলি নিন্মরূপঃ
    • K3 ভিসা মার্কিন নাগরিকদের স্বামী বা স্ত্রীদের জন্য যারা আমেরিকা স্থায়ীভাবে থাকতে চায়।
    • IR1 এবং CR1 ভিসা মার্কিন নাগরিকদের স্ত্রীদের জন্য।
    • K-4 ভিসা তাদের জন্য যারা K-3 ভিসা আবেদনকারীদের বাচ্চা।
  • ইমপ্লয়ার স্পন্সরড ভিসা। নিম্নলিখিত ভিসা টাইপগুলো এই ভিসার অন্তরভুক্ত।
    • EB1 ভিসাকে বলা হয় এমপ্লয়মেন্ট ফার্স্ট প্রেফারেন্স প্রায়োরিটি ওয়ার্কার্স ভিসা। যারা উন্নত ডিগ্রিধারী এবং ব্যতিক্রমী ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যক্তি।
    • Eb-5 ভিসা অভিবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য।
    • SI ভিসা হল ইরাকি এবং আফগান অনুবাদক বা দোভাষী যারা মার্কিন সেনাবাহিনীর সাথে কাজ করবে।

নন ইমিগ্রেন্ট ভিসা এবং ইমিগ্রেন্ট ভিসার মধ্যে পার্থক্য কি?

নন ইমিগ্রেন্ট ভিসাধারীকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অস্থায়ীভাবে থাকার অনুমতি দেয়, যার অর্থ হল তাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাবার আগেই তাদের নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে।

অপর দিকে ইমিগ্রেন্ট ভিসাধারী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে থাকার অনুমতি দেয়।অভিবাসী ভিসা ইমিগ্রেন্ট ভিসা গ্রীন কার্ড নামে পরিচিত।

আমেরিকা ভিসা দেখতে কেমন?

আপনি যখন ইউ এস এ এর ভিসা পাবেন তখন এটি নীচের ছবির মত দেখতে হবে। ভালো করে খেয়াল রাখতে হবে যেন আপনার পাসপোর্টের ডেটা এবং ভিসায় দেয়া সমস্ত তথ্যের সাথে পুরোপুরি মিলে যায়।তা না হলে দ্রুত মার্কিন দূতাবাসের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

america visa sample

কিভাবে আমেরিকা টুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করবেন?

মার্কিন ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করার জন্য আপনাকে এই সহজ ধাপগুলি অতিক্রম করতে হবে:

১ম ধাপঃ  DS-160 ফর্ম পুরন করা। প্রথমে DS-160 ফর্ম এর এই লিংকে যাবেন তারপর অনলাইন এই এপ্লিকেশনে থাকা সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে পুরন করে সাবমিট করতে হবে। সাবমিট হয়ে গেলে আপনি একটি বার কোড পাবেন যা নিশ্চিত করে আপনার এপ্লিকেশনটি সঠিকভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ফর্ম পুরন করার জন্য আপনি নিজে নিজে করতে পারেন অথবা কোন ট্রাভেল এজেন্টের সহায়তাও নিতে পারেন।

২য় ধাপঃ ভিসা ফি প্রদান করা।ভিসা ফি প্রদান করতে হলে আপনাকে ইস্টার্ন ব্যাংক লিঃ এর এর যে কোন শাখায় গিয়ে আমেরিকা ভিসা ফি প্রদান করতে হবে।ভিসা ক্যাটাগরি অনুযায়ী ভিসা ফি নীচে দেয়া হলঃ

Fee Amount (USD$)Fee Amount (BDT)Visa TypeDescription
$16016800.00BBusiness/Tourist
$160 16800.00 C-1Transit
$16016800.00DShip/Airline Crew
$16016800.00FStudent (academic)
$16016800.00MStudent (vocational)
$16016800.00IJournalist and Media
$19019950.00HTemporary/Seasonal Workers and Employment, Trainees
$19019950.00PAthletes. Artists & Entertainers
$19019950.00QInternational Cultural Exchange
$19019950.00RReligious Worker
$26527825.00KFiancé(e) or Spouse of U.S. Citizen
আমেরিকা ভিসা ফি

আমেরিকা ভিসা ফি জমা দেবার জন্য ইস্টার্ন ব্যাংক লিঃ এর জমা স্লিপের ছবি নীচে দেয়া হোল। এইখানে থাকা সব তথ্য সতর্কতার সাথে পুরন করে জমা দিতে হবে।

৩য় ধাপঃ আপনার ইউএস ট্যুরিস্ট ভিসা ইন্টারভিউ শিডিউল করা

আবেদনকারী সকলকে অবশ্যই মার্কিন দূতাবাসে ইন্টারভিউ দিতে হবে। এই ইন্টারভিউএ যোগ দেওয়ার জন্য, আপনাকে অবশ্যই মার্কিন দূতাবাসের সাথে একটি এপয়েন্টমেন্ট নির্ধারণ করতে হবে।এপয়েন্টমেন্ট এর তারিখ নেয়ার জন্য আপনাকে আপনার একাউন্ট লগ ইন করতে হবে এবং সেখানে থাকা এপয়েন্টমেন্ট ডেটগুলো থেকে আপনার পছন্দ অনুযায়ী তারিখ নির্বাচন করতে হবে। এই পদ্ধতিটি সম্পন্ন হলে, আপনি একটি ইন্টারভিউ নিশ্চিতকরণ চিঠি পাবেন যা আপনাকে ইন্টারভিউ এর সময় আনতে হবে।

৪র্থ ধাপঃ আপনার B2 ভিসার ডকুমেন্টস রেডি করা

B2 ভিসার আবেদন করার সময় আপনাকে যে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসগুলো সাথেনি তে হবে তা নীচে দেয়া হলঃ

  • বৈধ পাসপোর্ট। যার মেয়াদ কমপক্ষে ১ বছর রয়েছে।
  • এক কপি ছবি। 
  • ফর্ম DS-160 নিশ্চিতকরণ পৃষ্ঠা এবং কোড।
  • প্রদত্ত ভিসা ফি এর রসিদ।
  • ইন্টারভিউ নিশ্চিতকরণ পৃষ্ঠা।
  • ভ্রমণের উদ্দেশ্য বর্ণনা করে লিখা একটি চিঠি।
  • আর্থিক সচ্ছলতার প্রমাণপত্র। আপনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যতদিন থাকবেন তার জন্য প্রতিদিন আপনি কমপক্ষে ৩০০ ডলার খরচ করতে পারবেন এটা প্রমানের জন্য আপনার ব্যাংক স্টেটমেন্ট এবং সলভেন্সি সার্টিফিকেট।
  • নিজের দেশের সাথে সম্পর্ক। পরিবার, কাজের চুক্তি, ইজারা, বা সম্পত্তি দলিল, যা প্রমাণ করে যে আপনি ফিরে আসবেন।
  • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বন্ধু বা পরিবার থাকলে তাদের কাছ থেকে ইনভাইটেশন লেটার।
  • ফৌজদারি বা ক্রিমিনাল রেকর্ড এর চিঠি যা প্রমান করে যে আপনার পূর্বে কোন মামলা বা ক্রিমিনাল রেকর্ড নেই।
  • আপনার পূর্বের ভিসা কপি যদি আগে ইউ এস এ গিয়ে থাকেন।  
  • ট্রান্সক্রিপ্ট বা ডিপ্লোমা। এটি শুধুমাত্র শিক্ষার্থীদের জন্য প্রযোজ্য।
  • আপনি যদি একজন চাকুরীজীবী হন তাহলে আপনার নিয়োগকর্তার কাছ থেকে একটি চিঠি এবং গত তিন মাসের সেলারি-স্লিপ। 
  • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আপনার আত্মীয়ের অবস্থার ফটোকপি।
  • আপনার রোগ নির্ণয় এবং চিকিৎসার সম্পর্কে ডাক্তারদের চিঠি। আপনি চিকিৎসার উদ্দেশ্যে ভ্রমন করতে চান তাহলে।
  • সোশ্যাল মিডিয়ার বিস্তারিত। আপনি যে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন তার একটি তালিকা এবং অ্যাকাউন্টের নাম।

৫ম ধাপঃ ভিসা ইন্টারভিউতে অংশগ্রহণ করা।

আপনার সাক্ষাত্কারের তারিখে মার্কিন দূতাবাসের একজন কর্মকর্তা আপনার ইন্টারভিউ নিবেন। কেন আপনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যেতে চান সে সম্পর্কে আপনাকে প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করবেন। সবকিছু ঠিকঠাক আছে কিনা তা নিশ্চিত হতে আপনার ডকুমেন্টসগুলো চেক করতে পারেন। সাক্ষাত্কার দীর্ঘস্থায়ী হয় না তবে এর মধ্যেই দূতাবাসকে আপনার বুঝাতে সক্ষম হতে হবে যে আপনি ঘুরতে যেতে চান এবং ঘুরাঘুরি শেষে আবার আপনি ফিরে আসবেন।

ইউ এস এ ভিসার মেয়াদ কতদিন হয়ে থাকে?

ইউ এস এ টুরিস্ট ভিসার মেয়াদ ৫ বছরের হয়ে থাকে। আপনি প্রতিবার সর্বচ্চো ৬ মাস আমেরিকা থাকতে পারবেন। ৬ মাসের মধ্যে অবশ্যই আপনাকে দেশে ফিরে আসতে হবে নতুবা আপনি অবৈধ হয়ে যাবেন।

সবার সাথে শেয়ার করুন

Reply

error: Content is protected !!